এক কঠিন ঝড় বইয়ে দাও!


জাহাঙ্গীর আলম আকাশ ॥ বাংলাদেশের বড় দুই দলে সামান্য কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া সাধু বা দুর্নীতিমুক্ত রাজনীতিক আছে নাকি? হয়ত সংখ্যা বা মাত্রাগত কিছু পার্থক্য আছে বটে! ঘাতক-যুদ্ধাপরাধী ও স্বৈরাচারিদের ব্যাপারে আমরা সবাই জানি। কিন্তু মুখে আর বক্তৃতায় গণতন্ত্রী এবং দুর্নীতিমুক্ত হলেও বাস্তবে আমরা তার প্রমাণ খুব কমই পাই বড় দুইটি রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে। যারা এই সম্ভাবনাময় দেশটিকে স্বামী কিংবা পিতার কেনা সম্পদ মনে করে চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে চায়। বিএনপি-জামায়াত জোট আমলের দুর্নীতি-দু:শাসন সবারই জানা। কিন্তু আজকের বাংলাদেশের বাস্তব অবস্থাটা কি তার চেয়ে খুব বেশি সুখের, শান্তির? দেশের সংবাদমাধ্যমগুলির ওপরে চোখ রাখলেই দেখা যায় হত্যা-খুন, ধর্ষণ, সংখ্যালঘু-আদিবাসি র্নিযাতন এবং রাষ্ট্রীয় হত্যার মহাউৎসব! আগেই বলেছি পরিমাণ বা মাত্রাগত পার্থক্য আছে দুই দলের শাসনামলের মাঝে। আরও আছে ঐতিহ্য ও ইতিহাসগত সুনির্দিষ্ট কতিপয় ব্যবধান। একজন এক টাকা চুরি করলো, আরেকজন এক’শ টাকা চুরি করে। পুঁথিগত বা যুক্তিবিদ্যার ভাষায় উভয়ই চোর।
বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত এক নারী এখন স্কানডিনাভিয়ান দেশ সুইডেনের নাগরিক। যিনি বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রামে প্রিয় মানুষটিকে হারিয়েছেন। তিনি একটি বিশেষ দলের এক নেতার জন্মদিনকে উদ্দেশ্য করে ফেইসবুকে লিখেছেন যে, “চোরের রাজার জন্মদিনে চারটি কেক! চোর আর সন্ত্রাসীর জন্মদিনে জাতির আনন্দের আজ সীমা নেই! আহা কি দেশ! কি রাজনীতি! আমরা চোরের জন্মদিন পালন করি!”
আমরা বাঙালি, বাংলাদেশের মানুষ। দলনিরপেক্ষ হয়ে সার্বজনীন সত্যের কাছে যেতে চাই না, আমরা। আমার ভীষণ কষ্ট হয়, যখন দেখি সচেতন মানুষ অন্ধ রাজনৈতিক বিশ্বাসকে জীবন্ত রাখতে গিয়ে পরোক্ষভাবে শোষক-দুর্নীতিবাজদেরই পক্ষ নিয়ে কথা বলেন। না, সবার কথা বলছি না আমি। ব্যতিক্রম আছে, যার শত সহস্র উহাহরণ দেয়া যায়। কিন্ত্র ব্যতিক্রমকে তো আর উদাহরণ হিসেবে নেয়া যায় না।
রাজনৈতিক ইতিহাস সৃষ্টি কিংবা একটি দেশের স্বাধীনতা এনে দেয়ার মানে সেই দেশটটাকে নিজের বাপ-দাদার সম্পদ ভাবা কতটা সমীচীন তা পাঠকরাই বিবেচনা করবেন। দেশের মানুষের কল্যাণ-সুখ-শান্তি প্রতিষ্ঠা করা এবং দেশের অর্থনৈতিক বুনিয়াদকে শক্ত ভিত্তির ওপর দাঁড় করতে পারাটাই বড় কথা। সেই জায়গায় দুই দলের অবস্থান কোথায় তারও বিচার করবেন দেশের মানুষই।
হে, আমার প্রকৃতি তুমি আর চুপ করে থেকো না! প্রকৃতি তোমার কাছে আমাদের ফরিয়াদ মিনতি, র্প্রাথনা। বাংলার দুই নেত্রীর মন ও হ্রদয়ের জেদ, হিংসা-বিদ্বেষ এবং তাবৎ গণতন্ত্রহীনতাকে ভেঙ্গে তছনছ করে দেয়ার মতো এক কঠিন ঝড় বইয়ে দাও! যে ঝড়ের তান্ডবলীলায় তাদের ক্ষমতালিপ্সাকে দেশপ্রেমের জাগরণে জাগরিত করবে। দেশের মানুষ শান্তি ফিরে পাবে। কার্টুনের এই ছবিটি নেযা হয়েছে ইন্টারনেট থেকে। editor.eurobangla@yahoo.de, http://www.eurobangla.org/

Advertisements

মন্তব্য করুন

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s