সাগর-রুনির খুনিকে বিদেশে পালাতে সহায়তা করলো হাসিনার মহাজোট সরকার!

জাহাঙ্গীর আলম আকাশ ।। জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে বাংলাদেশের দুই জনপ্রিয় টিভি সাংবাদিক সাগর-রুনির নৃশংস হত‍্যার প্রতিবাদে এক প্রতিবাদ সমাবেশ ডেকেছে সেখানে বসবাসরত বাঙালিরা। আগামি ৩ মার্চে অনুষ্ঠে‍্যয় এই সমাবেশ অংশ নেয়ার জন‍্য তিন হাজার ৮৬২ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ‍্যম ফেইসবুকে। এই বিপুল আমন্ত্রিত’র মধে‍্য ব‍্যক্তিগতভাবে আমার নামটিও অন্তর্ূভক্ত করে আয়োজকরা। তারই প্রতিক্রয়ায় আজকের এই ছোট্র কলাম।
আজকের লেখার শুরুতেই একটি চাঞ্চল‍্যকর তথ‍্য জানাতে চাই। আর সেই তথ‍্য জানিয়েছেন বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। সাগর-রুনির খুনিকে পালাতে সহায়তা করলো হাসিনার মহাজোট সরকার! খালেদা এই অভিযোগ এনেছেন। খালেদার অভিযোগ রাজনৈতিক কিনা তা আমরা জানি না। তবে সাগর-রুনির খুনিদের গ্রেফতার ও খুনের রহস‍্য উন্মোচনে সরকার যে টালবাহানা করছে তাতে কোন সন্দেহ নেই। সরকার এখন এই পরিকল্পিত জোড়া হত‍্যাকান্ডকে ডাকাতির ঘটনা বলে সাজানোর পাঁয়তারা চালাচ্ছে!
জার্মানির বাঙালি ভাই-বোনদের উদ্দেশ‍্য বলছি বা লিখছি। সাংবাদিক সাগর-রুনির হত‍্যাকারিদের হাসিনার মহাজোট সরকার গ্রেফতার করবে না! খুনের রহস‍্যও উন্মোচন করবে না। যদি করেও তা হবে আরকে জজমিয়া নাটক, যা খালেদা-নিজামী ও বাবর-তারেকরা করেছিল ২০০৪ সালে হাসিনা ও আওয়ামী লীগের ওপর হামলার ঘটনায়। আপনাদের ব‍্যাকুলতা-উদ্বিঘ্নতার প্রতি আমিও সহমর্মী। কিন্তু এতদূর থেকেতো আর যাওয়া সম্ভব নয়, মানসিকভাবে নিশ্চয়ই যাবো। তবে শারীরীক উপস্থিতির সামর্থ‍্য নেই আমার। এজন‍্য আমি দু:খিত। আমি এও বিশ্বাস করি যে, “এমন দু’একটি মানববন্ধন, সভা-সমাবেশ আর প্রতিবাদে হাসিনার মহাজোট সরকারের কিছুই যায় আসেনা। বিশেষ করে একনায়ক ও একগুয়ে হাসিনার মন গলবে বলে মনে হয় না! তাছাড়া তিনিতো বলেই দিয়েছেন যে, সরকারের পক্ষে কারও বেডরুম বা শয়নকক্ষ পাহারা দেয়া সম্ভব নয়।”
বিএনপি চেয়ারপারসন ও বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া আজ লালমনিরহাটের এক জনসভায় অভিযোগ করে বলেন, হাসিনা সরকার সাগর-রুনি খুনের সঙ্গে জড়িত। তাই তারা খুনিদের দেশের বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছে। গোটা দেশে আজ সাংবাদিকরা এক ঘন্টার কর্মবিরতি পালন করে।
দেশে কোটি কোটি টাকা দিয়ে পুলিশ, গোয়েন্দা ও এলিটফোর্স র‍্যাপিড একশান ব‍্যাটালিয়ান বা র‍্যাবকে পোষা হচ্ছে। এজন‍্য জনগণের কোটি কোটি টাকা ব‍্যয় হচ্ছে এসব সংস্থা ও বাহিনীকে পুষতে। কিন্তু কাজের কাজ কী হচ্ছে, কিছুই না? সাগর-রুনির হত‍্যাকান্ডের অনেকদিন পার হয়ে গেলো। পুলিশ, র‍্যাব ও গোয়েন্দারা খুনিদের আজও ধরতে পারলো না। জনগণ, বাংলার মানুষ ও সাংবাদিক সমাজ সরকার তথা হাসিনার কাছ থেকে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করা কিংবা হাসি-ঠাট্রার মধ‍্য মতো ছেলেমানুষী বক্তব‍্য শুনতে চাননা। মানুষ চায় জীবনের নিরাপত্তা, স্বাভাবিক মৃতু‍্যর নিশ্চয়তা। বাংলাদেশ যে মৃতু‍্যউপত‍্যকা, আগ্নেয়গিরির মুখে নিপতিত, তা থেকে স্বদেশকে বাঁচাতে হবে। সারাবিশ্বের বাঙালিকে দলমতের উদ্ধের্ ওঠে দেশকে বাঁচানোর পথ খুঁজতে হবে। একজন দুর্ভাগা বাঙালি, বাংলাদেশের নাগরিক বা বাংলাদেশি হিসেবে আমার এই আকুল আবেদন। আসুন আমরা খালেদা-হাসিনা নয় দেশটাকে বাঁচানোর পথে এগোই। কার্টুন এই ছবিটি দৈনিক সংবাদ থেকে নেয়া। http://www.eurobangla.org/, editor.eurobangla@yahoo.de,

Advertisements

মন্তব্য করুন

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s