শহীদের আত্মা চাইছে সব রাজাকার-যুদ্ধাপরাধীর বিচার ।। সাগর-রুনি হত‍্যা বিচার হবে কী?


জাহাঙ্গীর আলম আকাশ।। সাগর-রুনিদের হত‍্যা করা হবে। মেঘ, পর্শিয়াদের আমরা কয়েকদিন, কয়েক মাস শান্তনা দেবো। মিনার মাহমুদরা রহস‍্যজনকভাবে মরবেন। যোগ‍্যদের কদর দেবো না। অযোগ‍্যরা সবকিছুকে গ্রাস করবে। সন্ত্রাস দমনের নামে বিনাবিচারে মানুষ মারার উৎসব করবো। মানবাধিকার লংঘণের সব ঘটনাই মিডিয়া অবলোকন করবে, দাঁড়াবে না মানুষ ও সতে‍্যর পক্ষে। কেউ নিহত বা মরে গেলে তিনি সবার কাছে হয়ে যাবেন ফেরেশতা। কিন্তু বেঁচে থাকতে তার খোঁজ নেয়না কেউই। তার সর্বশেষ উদাহরণ দেয়া যেতে পারে আশির দশকের সাড়া জাগানো দুর্দান্ত সাহসী সাংবাদিক মিনার মাহমুদকে। তিনি আজ আমাদের মাঝে নেই। তাঁর সম্পর্কে এখন তাঁর পুরনো সুহৃদরা লিখতে লিখতে ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন। কিন্তু বেঁচে থাকতে তাঁকে কেউ একটা চাকরি দেননি!
মানবমুক্তির সংগ্রাম চালাতে গিয়ে আমরা যারা স্বদেশে থাকতে পারিনা, বাধ‍্য হই বিদেশে আসতে। পরের দেশে এসে আমরা কী করি বা কী খাই, জীবনে বেঁচে থাকার সংগ্রামটা কত কঠিন? তা একমাত্র ভুক্তভোগিরাই বুঝতে পারেন অন‍্য কেউ নন। বিশেষ করে অ-ইংরেজী ভাষার দেশগুলিতে ভাষা শেখার জন‍্য যে লড়াই চালাতে হয় তা বর্ণনাতীত। তবুও স্বদেশ থেকে বিদেশে আসতে চাই অনেকেই। এমনকি অনেক পিএইচডিধারি, বিখ‍্যাত সাংবাদিকও বিদেশে আসার পথ খুঁজতে থাকি। কিন্তু কেন? আজকের লেখার বিষয় সেটা এটা নয়। ফেইসবুকে দু’টি স্ট‍্যাটাস নিয়ে ছোট্র আকারে নিজের মত প্রকাশ করার জন‍্যই লিখতে বসলাম।
মিডিয়া ব‍্যক্তিত্ব মির্জা তারেকুল কাদের ফেইসবুকে লিখেছেন, “মিনার মাহমুদের বেশি ক্ষোভ ছিল বন্ধুদের প্রতি। অনেক বিখ‍্যাত ও ক্ষমতাবান বন্ধু ওকে সাহায‍্য করেনি। সুযোগ থাকলেও দেয়নি চাকরি। আসুন আমরা বন্ধুরা যেনো বন্ধুদেরকে সাহায‍্য করি, তাদের প্রতি নির্মম না হই।” একটি সুন্দর আহবান, প্রত‍্যাশা। কিন্তু আমি বলবো ভিন্ন কথা। একটা অসমান, অন‍্যায‍্য, স্বার্থপর সমাজে আপনার এই মহান ডাককে বাস্তব রুপ দেয়া খুব সহজ নয় তারেক ভাই।
কয়েকজন বন্ধুর ফেইসবুক স্ট‍্যাটাসে দেখলাম আজ একজন কবির জন্মদিন। গোলাম কিবরিয়া পিনু, জীবনের কবি। মানবমুক্তির সংগ্রামেরত এই কবিকে চেনেন না এমন কেউ নেই বাংলায় বিশেষ করে শিক্ষিত সমাজে। কবির উদ্দেশে দু’একটি কথা লিখতে চাই। আপনার কলমের আঁচড়ে ভেঙ্গে যাক অন‍্যায়-অন‍্যায‍্য আর দুর্নীতির পাথর। ধ্বংস হয়ে যাক গণতন্ত্রের নামে স্বৈরতন্ত্রের পতাকাবাহী পরিবারতন্ত্রপূজারি নেতৃত্ব। বন্ধ হোক বিনাবিচারে মানুষ হত‍্যা-নির্যাতন। বিচার পাক মেঘ পর্শিয়ারা। বন্ধ হোক বিচারের নামে রাজনৈতিক নাটকের খেলা। শহীদের আত্মা চাইছে সব রাজাকার-যুদ্ধাপরাধীর বিচার। ঘুচে যাক সমাজ ও রাষ্ট্রের বদনাম। মুক্তি পাক দেশের মানুষ। আপনি কবি, বাঁচুন হাজার বছর। ছবি ফেইসবুক থেকে নেয়া। editor.eurobangla@yahoo.de, http://www.eurobangla.org/

Advertisements

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s