গোয়েন্দাজালতত্ত্ব ।। সাগর-রুনির খুনি এবং গোলাম আজম-বাচ্চুদের প্রতি হাসিনা সরকার কী বিশেষ সহানুভূতিশীল?


জাহাঙ্গীর আলম আকাশ।। গোলাম আজমকে বাড়ির রান্না করা ভাত খাওয়াচ্ছে হাসিনা সরকার!শত শত হাজারো বন্দি জেলে করুণ জীবন কাটাচ্ছেন দেশের ৬৯/৭০টি কারাগারে। কেউ এমন বিশেষ সুবিধা পাচ্ছেন না। তবে কী গোলাম আজম বিশেষ কোন ব‍্যক্তি? একাত্তরে এই লোকটিতো পাকবাহিনীকে সহায়তা করেছিলেন। মুক্তিযুদ্ধকে কটাক্ষ করেই চলেছেন আজও। গোলাম আজম বাড়িতে রান্না করা খাবার পাবার অধিকার পেলে অন‍্য বন্দিরা কেন পাবেন না? অন‍্য বন্দিরাতো গো.আজমের মতো যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে অভিযুক্ত নন, তারপরেও তারা কেন বৈষমে‍্যর শিকার হবেন?
পাকিস্তানী নাগরিক যুদ্ধাপরাধী গোলাম আজম বঙ্গবন্ধু হত‍্যাপরবর্তীকালে বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পান জেনারেল জিয়া (মুক্তিযোদ্ধা)’র আমলে। অনেক বছর পর হাসিনার মহাজোট সরকার সেই কুখ‍্যাত মানুষটিকে ধরেছে। আরও বেশ ক’জন গ্রেফতার হয়েছেন একই অভিযোগে। যাদের আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবু‍্যনালে বিচার চলছে। দেশে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে যাদের বিচার চলছে তাদের বিরুদ্ধে নারী ধর্ষণ, আগুন লাগানো, নরহত‍্যাসহ বিভিন্ন অভিযোগ আছে।
ফরিদপুরের আরেক কুখ‍্যাত রাজাকার বাচ্চু নাকি গোয়েন্দাজালের ভেতরেই ছিলেন। তাহলে তিনি কেন ধরা পড়ছেন না এখনও। সরকারতো একইভাবে সাগর-রুনির খুনিদের বেলায়ও বলেছিল যে খুনিরা গোয়েন্দাজালের ভেতরেই আছে। সাগর-রুনির খুনিরা পালাতে পারবে না। তবে এখনও কেন তারা ধরা পড়ছে না? তবে কী হাসিনা সরকার সাগর-রুনির খুনি এবং বাচ্চু রাজাকার ও গোলাম আজমদের প্রতি বিশেষ সহানুভূতি দেখাচ্ছে? আর পুলিশই বা কেন এই গোয়েন্দাজালতত্ত্ব’র ভেলকি দেখিয়ে বাচ্চুদের কিংবা সাগর-রুনির খুনিদের আঁড়াল করতে চাইছে? উল্লেখ‍্য, ১৯৭১ সালে মুক্তযুদ্ধকালে রাজাকার আলবদরদের সহায়তায় ৩০ লাখ বাঙালিকে হত‍্যা করে পাক বাহিনী। ছবি গুগল থেকে নেয়া।

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s