Daily Archives: 24/05/2012

সাংবাদিক সাগর-রুনির হত‍্যাকান্ড নিয়ে আর কত খেলা?


জাহাঙ্গীর আলম আকাশ ।। না, সাংবাদিক সাগর-রুনিকে কেউ হত্যা করেনি! উনারা নাকি নিজেরাই নিজেদেরকে হত্যা করেছেন? শয়তানি কাকে বলে আর কী? চুরি বা ডাকাতির গল্পটা বিশ্বাসযোগ্য হবে না বলে এমন একটি গাজাখুরি গল্প বানানোর নাকি উদ্যোগ নিয়েছে তথাকথিত এলিট ফোর্স বা রাষ্ট্রীয় খুনিবাহিনী! না, অবাক হই না, আশ্চর্য্য হবারও কিছু নেই। ওই শ্মশানে, গোরস্থানে, মৃত্যুউপত্যকায় সব সম্ভব! কাউকে দোষ দেবো না। দোষ আমাদের নিয়তির! এই কারণে যে আমরা ওখানেই জন্মেছি! এজন্য কোন আক্ষেপ নেই। কারণ মা ও মাটি কখনও বেইমানি করে না। তবে কুলাঙ্গার সন্তান মাকে অপমান করে কখনও কখনও! সেরকমই সন্তানদের কাঁধে ভার পড়েছে দেশ চালানোর! তাই যা হবার তাই হচ্ছে, আর কী? রাজনীতি যখন দুর্বৃত্ত হয় তখন সেখানে করার কিছুই থাকে না। তবে একটা জনজাগরণ আসবে যে জাগরণের বন্যায় অপশাসন, দুর্নীতি, দুর্বৃত্তপনা ভেসে যাবে, যেতেই হবে। সেরকম কোন পরিবর্তন হয়ত অত সহজে দ্রুত আসবে না। তবে আসতেই হবে। মেঘের কাছে মাফ বা ক্ষমা চাবার মতো সৎ সাহস আমাদের রাষ্ট্রনায়ক, সমাজপতিদের কিংবা সাংবাদিক নেতাদের(যারা চাপান করেন, গণভবনে গিয়ে প্রীত হন) আছে কি? সাংবাদিক বন্ধু সাগর-রুনির হত‍্যাকান্ড নিয়ে আর কত খেলা চলবে? ছবিটি ফেইসবুক থেকে নেয়া।

ভালবাসা না নির্মমতা?


জাহাঙ্গীর আলম আকাশ ।। ভালবাসা নয়, নির্মমতা! কোথায় ভালবাসা, স্নেহ, মায়া আর মমতা? একটা নয়, দু’টা নয় রীতিমতো চার চারটি নতুন সৃষ্টি যারা দেশের র্কণধার হতে পারতো কোন একদিন। সেই চার নবজাতককে কে ডাস্টবিনে ফেলে দেবার মতো নৃশংসতা দেখাতে পারলো। না এটা ইউরোপের ঘটনা নয় আমার স্বদেশের র্নিমমতা! একটি পশুও বাচ্চা জন্ম দেবার পর কতনা আদর-ভালবাসা দেয়! কিন্তু আমরা বলে মানুষ! ওই নবজাতকগুলির কী দোষ? তারাতো কারও না কারও ভালবাসারই ফল। হয়ত পরে ভালবাসার সঙ্গে কোন একজন (দুইজনের মধ্যে) প্রতারণা করেছে। তাতেই এই নতুন সৃষ্টিকে ওভাবে ডাস্টবিনে কেউ ফেলে? ওদের ভেতরে বিন্দুমাত্র ভালবাসা নেই তাদের নিজেরই ওপর। ধিক্কার!!! ছবি গুগল থেকে নেয়া।