পদ্মা সেতু: বিশ্বব‍্যাংকের অভিযোগ হাসিনার টেলিফোন এবং জাইকার মাধ‍্যমে নতজানু নীতির বহি:প্রকাশ

জাহাঙ্গীর আলম আকাশ।। কে না জানে, বিশ্বব‍্যাংক ও আইএমএফ জাতীয় প্রতিষ্ঠানগুলির সাথে একটা নিবিড় যোগসাজশ আছে সাম্রাজ‍্যবাদি শক্তিগুলির? ওই শক্তিগুলি কিংবা মার্কেল, ন‍্যাটো ও ওবামা-বুশ-ক্লিনটনরা খুশি থাকলেই হলো, যেকোন জাত ধরণ আর রকমের পুরস্কার পাওয়া যায়! এসবে নতুন কিছু নেই। সমাজটা পুরুষ শাসিত নাকি নারী শাসিত তাতেও কিছু আসে যায় কী? প্রশ্ন আর প্রয়োজনটা কিন্তু সার্বজনীন! সেটা হলো সমাজটা কতটা উদার, কতটা নৈতিক ও গণতান্ত্রিক ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে আছে? কোন বিশেষ সমাজে ন‍্যায়বিচার, আইনের শাসন, পরমত সহিষ্ণুতা আর ত‍্যাগের (কেবল ব‍্যক্তি, পরিবার বা নিজ দলের ভোগের জন‍্য নয়) মাত্রা কোন পর্যায়ে আছে তার ওপরও কী নির্ভর করে না সেই বিশেষ সমাজটা কোন পথে হাঁটবে? যাহোক যে কথাটি বলতে চাইছি সেইখানে আসা যাক। বিশ্বব‍্যাংক পদ্মা সেতু বিষয়ে দুর্নীতির অভিযোগ আনলো।
খোদ হাসিনাসহ মহাজোট সরকারের নানা পর্যায়ের নানাজনে বহুরুপী কথাবার্তা বললো। আর এখন আবার একটা নরম সুর বেরিয়ে এলো অর্থমন্ত্রি আবুল মালের মুখ থেকে। বিশ্বব‍্যাংক ও পদ্মা সেতৃ সম্পর্কিত সংকট সমাধানে তিনি অবশেষে জাইকার স্মরণাপন্ন হলেন। বিশ্বব‍্যাংকের অভিযোগ বিষয়ে সরকারের নৈতিক মেরুদন্ড যদি সোজাই থাকে তবে কেন তারা আবার নতজানু পথে পা বাড়াচ্ছেন? দেশের রাষ্ট্রপতি থেকে শুরু করে সব সরকারি বেসরকারি কর্মকর্তা-চাকুরে ব‍্যক্তিগত তহবিল থেকে ১০০/৫০০/১০০০/৫০০০/১০০০০ (এছাড়া যাদের কালো টাকা ও ব‍্যবসা আছে তারা সবাই কমপক্ষে এক কোটি করে টাকা দেবে) টাকা করে দিলে এবং সারা দুনিয়ায় বাংলাদেশের যত বাঙালি বা বাংলাদেশি ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছেন যার যা সামর্থ‍্য আছে তার ভেতর থেকেই নূ‍্যনতম ক্ষমতা নিয়ে সাহাযে‍্যর হাত বাড়ালেই ওরকম দু’একটি পদ্মা সেতু নির্মাণ কী খুব অসম্ভব কিছু? পরিশেষে একটা প্রশ্ন করবো, জাইকা বা বিশ্বব‍্যাংকের কাছে মাথানত না করে দুর্নীতির অভিযোগটির যথাযথ তদন্ত করার মুরোৎ সরকারের নেই কেন?
প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনা মিডিয়ায় ইতিপূবর্ে যে দু’টি মোবাইল নম্বর দিয়েছিলেন সেইগুলিতে গত তিনদিন ধরে টেলিফোন করেও লাইন পাইনি। ইউরোপ থেকে ফোন করার চেষ্টা করছি। আজ আবার আরেকটি নম্বর পাওয়া গেলো প্রথম আলোতে। সেই নম্বরটিতেও রিং করার চেষ্টা করছি। কিন্তু কোনটাতেই পাচ্ছি না। দেশের মানুষ কী তবে হাসিনার সঙ্গে সতি‍্য সতি‍্য কথা বলতে পারছেন? নাকি নতুন এই চমকও একটি ফাঁকা ও ফাঁপা আয়োজন! সংবাদপত্রে প্রকাশিত শেখ হাসিনার ই-মেইলেও একটা মেইল পাঠিয়েছি। কোন দিক থেকেই কোন সাড়া মিলছে না! আসলে ব‍্যাপারটা কী, জানতে ইচ্ছে করছে? ছবি গুগল থেকে নেয়া

Advertisements

One response to “পদ্মা সেতু: বিশ্বব‍্যাংকের অভিযোগ হাসিনার টেলিফোন এবং জাইকার মাধ‍্যমে নতজানু নীতির বহি:প্রকাশ

  1. The vicious cycle of Imperialism would not disappear by only criticism. To come out from the grab of Imperialism, Bangladesh need FUNDAMENTAL INSTITUTIONS of Democracy and Nationalism. For those Bangladesh severely needs the following TWO Institutions/Reorganizations:

    (1) BICAMERAL PARLIAMENT as like as Japan-France-US’ States and an
    ELECTION of SECOND HOUSE by DECEMBER, 2012 (http://new.ittefaq.com.bd/news/view/82641/2012-03-14/19)

    (2) MYMENSINH & COMILLA Divisions for HIGHER ECONOMIC GROWTH as like as Britain, Japan & South Korea as well as for END of CONFLICTING & HORTALING Politics. (http://jugantor.us/enews/issue/2011/09/03/news0407.htm )

    I shall request the Euro-bangla please to print those articles.

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s