এই পোড়া লাশের গন্ধ কী হাসিনা-খালেদার নাকে পৌঁছায়?


জাহাঙ্গীর আলম আকাশ ।। আগুনে পুড়ে ১১২ জন শ্রমিক নিহত হয়েছেন ঢাকার সাভারের নিশ্চিন্তপুরের পোশাক কারখানা তাজরিন ফ্যাশনে। এমন অমানবিক মৃতু‍্য এর আগেও বহুবার ঘটেছে। কিন্তু কেন ঘটছে, কারা দায়ি এমনসব হৃদয়বিদারক মৃতু‍্যর জন‍্য তা জানা যাচ্ছে না। এমন সারি সারি লাশ শোকপ্রকাশের ঢল নামায়। এবারও কোন ব‍্যতর্‍্যয় ঘটেনি। প্রধানমন্ত্রি, বিরোধীদলীয় নেত্রী ইতোমধে‍্যই শোক জানিয়েছেন। সরকার নাকি আবার জাতীয় শোক ঘোষণা করবে। ভাবখানা এমন যেন জাতীয় শোক ঘোষণা করলেই স্বজনহারা মানুষগুলি তাঁদের প্রিয়জনদের ফিরে পাবেন!
দেশের পোশাকশিল্প অর্থনীতিতে এক বিরাট ভূমিকা পালন করে। সেই সেক্টরে কর্মরত শ্রমিকরা কী মানবেতর জীবন যাপন করে তা সবারই জানা। ২০০০ থেকে ৫০০০ টাকার মাসিক বেতনে একটা পরিবার চলতে পারে না। পোশাক কারখানার মালিকদের বাড়ে জৌলুস, বাড়ে না দরিদ্র অসহায় শ্রমিকদের বেতন-ভাতা। একদিকে অর্থনৈতিক অনিরাপত্তা আরেকদিকে জীবনের অনিশ্চয়তা। পোশাক শ্রমিকদের জীবন আটকা পড়েছে এই দুই অনিশ্চয়তার জালে। কিন্তু তাতে হাসিনা বা খালেদার কী আসে যায়? উনারাতো শুধু ক্ষমতা চান, গদি রক্ষা আর গদিতে বসার লড়াই অটুট থাকলে কে মরলো, আর কে বাঁচলো ততে তাঁদের কোন আসে যায় কী?
পোশাক কারখানাগুলিতে আগুন লাগার মতো জরুরি সময়ে শ্রমিকদের বাইরে বেরিয়ে আসার মতো কোন সুব‍্যবস্থা আছে কিনা, আগুন নেভানোর মতো কোন ব‍্যবস্থা কিংবা কারখানার আশেপাশে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি বা জলাধার আছে কিনা এসব প্রশ্ন কখনও কী সরকার খতিয়ে দেখেছে বা দেখে? যেনতেন প্রকারে পোশাক কারখানা গড়ে তুলে সাধারণ শ্রমিকদের ঘামঝড়া পরিশ্রমের ফসলে মালিকরা বাহাদুরি করে, কিন্তু যাঁদের কারণে এই বাহাদুরি চলে তাঁদের জীবনের নিরাপত্তার ব‍্যবস্থা যারা করতে পারেনি বা পারে না তাদের বিরুদ্ধে কী কখনও সরকার ব‍্যবস্থা নেবে?
ফি-বছর পোশাক কারখানায় আগুন লাগে, মানুষ মরে। শ্রমিকদের আশা-ভরসা পুড়ে ছাই হয়ে যায়। কিন্তু পোশাক কারখানার শ্রমিকদের নিরাপত্তা ব‍্যবস্থা বাড়ে না। বাড়ে না অর্থনৈতিক অধিকারও। প্রতিবছর মানুষ পুড়বে আর আমরা শোকসভা ও শোকবাণী বা বিবৃতির মধ‍্য দিয়েই পোড়া মানুষগুলিকে সমাহিত করবো! আর কতো কান্না,যন্ত্রণা ও পোড়া লাশ পেলে ক্ষমতা ও গদিপ্রিয় মানুষগুলির হৃদয়ে ভালোবাসার জন্ম নেবে এইসব দরিদ্র মানুষগুলির জন‍্য?
এসব অভাগা, অসহায় ও দরিদ্র মানুষগুলির (প্রকৃতঅর্থে যাঁরা হাসিনা-খালেদাদের লাক্সারিয়াস জীবনের রসদ যোগান দেন) পোড়া লাশের গন্ধ কী হাসিনা-খালেদার নাক পর্যন্ত পৌঁছায়? নাকি উনাদের সেই অনুভূতিবোধ আছে? ছবি-বিডিনিউজ২৪ থেকে নেয়া।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s